রবিবার, মে ১৯, ২০২৪
প্রচ্ছদদেশজুড়েতজুমদ্দিনে সংঘর্ষে দুই দস্যু বাহিনী প্রধানসহ নিহত ৪

তজুমদ্দিনে সংঘর্ষে দুই দস্যু বাহিনী প্রধানসহ নিহত ৪

ডেস্ক রিপোর্ট (বিডি সময় ২৪ ডটকম)

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ভোলার তজুমদ্দিনের তেলিয়ার চরে জলদস্যুদের দুই পক্ষের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। বন্দুক যুদ্ধের পর পালিয়ে যাওয়ার সময় জনতার পিটুনিতে ৪ জলদস্যু নিহত হয়েছে।

নিহতরা হলেন, মেঘনার দুর্ধর্ষ জলদস্যু স্পিকার বাহিনীর প্রধান জয়নাল স্পিকার (৪০), গিয়াস বাহিনীর প্রধান গিয়াস (৪০), তাদের সহযোগী ধূয়া জহির (৩৬) এবং সালাউদ্দিন (৪২)।

এদের মধ্যে জয়নালের বাড়ি নোয়াখালী জেলা ও গিয়াসের বাড়ি ভোলার মনপুরা উপজেলায় বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এদের বিরুদ্ধে অর্ধশতাধিক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

তজুমদ্দিন থানার এসআই হুমায়ুন কবির ঘটনাস্থল থেকে জানান, জলদস্যু স্পিকার ও গিয়াস বাহিনী দীর্ঘদিন ধরে মেঘনায় ডাকাতি কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। শনিবার দুপুর থেকেই হাতিয়ার বিভিন্ন চরে দু’গ্রুপের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। একাধিবার বন্দুর যুদ্ধের পর এক পর্যায়ে সন্ধ্যায় উভয় গ্রুপ তজুমদ্দিনের তেলিয়ার চরে অবস্থান নিলে মেঘনায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ঘণ্টাকালব্যাপী বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

রাত সাড়ে ৭টার দিকে নৈরাজ্যসৃষ্টিকারী ডাকাতদের ধাওয়া করে স্থানীয় জনতা। এ সময় স্থানীয় জনতার পিটুনিতে ৪ জন নিহত হয়।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১টি বন্দুক, ২ রাউন্ড কার্তুজ ও বেশ কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে। বন্দুক যুদ্ধে উভয় পক্ষের মধ্যে ২ শতাধিক রাউন্ড গুলি হয় বলে জানায় পুলিশ।

এদিকে, মেঘনায় দুর্ধর্ষ জলদস্যু নিহতের খবরে সাধারণ জেলেদের মধ্যে আনন্দ উচ্ছ্বাস করার খবর পাওয়া গেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (রাত ১০টা ১১ মি:) নিহত দস্যুদের চর থেকে তজুমদ্দিনের নিয়ে আনার প্রস্তুতি চলছিল।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ