সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪
প্রচ্ছদখেলার সময়দুর্নীতি দমন ও নিরাপত্তা ইউনিট (আকসু) কাজ শেষ করে ফিরে গেছে

দুর্নীতি দমন ও নিরাপত্তা ইউনিট (আকসু) কাজ শেষ করে ফিরে গেছে

BCB_BPLআন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)‘র দুর্নীতি দমন ও নিরাপত্তা ইউনিট (আকসু) কাজ শেষ করে ফিরে গেছে সোমবার সকালে। আগের রাতে আকসু প্রতিনিধিদের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসানের। বৈঠকের আলোচ্য বিষয় গোপন রাখায় বিসিবি কর্মকর্তারাও ধোঁয়াশার মধ্যে। বিষয়টি অবহিত করার জন্যই মঙ্গলবার অ্যাডহক কমিটির বৈঠক ডেকেছে বিসিবি।

বিপিএল দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকা নিয়ে ব্যাপক তদন্তে নামে আকসু। গ্ল্যাডিয়েটরসের দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারদের জেরা করে তথ্য প্রমাণাদি সংগ্রহ করেছে তারা। তদন্তের পাশাপাশি প্রতিবেদন তৈরির কাজও করছে আকসু। তারই আলোকে বিসিবি সভাপতিকে একটা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে একটি সূত্র।

বিসিবি অ্যাডহক কমিটির একজন পরিচালক নাম গোপন রাখার শর্তে সোমবার জানান, আকসু এখনই তদন্ত প্রতিবেদন দেবে না। তিনি বলেন,‘বিপিএল ছাড়াও যেহেতু আন্তর্জাতিক ম্যাচের বিষয়টি চলে এসেছে, সেজন্য আকসু আরও তদন্ত করবে। সবদিক তদন্ত শেষ করে প্রতিবেদন দেবে বলে তারা জানিয়েছেন সভাপতিকে। কেন তদন্ত করবে সেটাও বোর্ড সভাপতিকে জানিয়েছে। আকসুর সাথে সভাপতির যে আলোচনা হয়েছে সেটা আমাদের জানানোর পর মিডিয়ায় ব্রিফিং করবেন।’

বৈঠকটি একেবারে সিদ্ধান্তহীন নাও হতে পারে। মোহাম্মদ আশরাফুলসহ অভিযুক্তদের ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট কর্মকাণ্ড থেকে সাময়িক বিরত রাখার সিদ্ধান্তও হতে পারে। বিশেষ করে ক্রিকেটে আশরাফুলের অংশগ্রহণ থাকবে কিনা সে প্রশ্ন বড় হয়ে উঠেছে। জাতীয় দল নির্বাচকরাও এ সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন বিসিবি’র ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিজামউদ্দিন চৌধুরীর কাছে। কিন্তু তিনি কোনো সমাধান দিতে পারেননি।

আশরাফুল একা নন, ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের যে যে ক্রিকেটারকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে আকসু এবং যাদের বিষয়ে সন্দেহ আছে, সাময়িক নিষিদ্ধ হতে পারেন তারাও। জাতীয় দলের সাবেক তিন ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করেছেন আশরাফুল তাদের ইস্যুতেই প্রলম্বিত হবে আকসুর তদন্ত।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ