সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
প্রচ্ছদইন্টারভিউঅবশেষে সংসদে ফিরছে বিএনপি

অবশেষে সংসদে ফিরছে বিএনপি

Perliament-BNPঅবশেষে সংসদে ফিরছে বিএনপি। আগামী ৩ জুন বাজেট অধিবেশনে তারা যোগ দেবে বলে জানিয়েছেন বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবদীন ফারুক।  তিনি বলেন, ৩ জুন বিকেল চারটায় বিএনপির সংসদীয় দলের বৈঠক ডেকেছেন খালেদা জিয়া। জাতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় সভাকক্ষে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠক শেষে ওই দিনই বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যরা সংসদের অধিবেশনে যোগ দেবেন।

সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, ১৭তম অধিবেশন পর্যন্ত ৩১৬ কার্যদিবস অনুপস্থিত থেকে সংসদ বর্জনের ক্ষেত্রে দেশে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে বিএনপি। অতীতে কোন বিরোধী দলেরই এতো দীর্ঘ সময় সংসদ বর্জনের রেকর্ড নেই। নবম জাতীয় সংসদে এ পর্যন্ত ১৭টি অধিবেশনে মোট ৩৭০ কার্যদিবসের মধ্যে বিএনপির সংসদ সদস্যরা উপস্থিত থেকেছেন মাত্র ৫৪ কার্যদিবস। এর মধ্যে বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়া উপস্থিত ছিলেন মাত্র ৮ কার্যদিবস। সর্বশেষ গত ১২তম অধিবেশনে ২০ মার্চ সংসদে যোগ দেন তিনি। ওই অধিবেশনে দীর্ঘ ১ ঘণ্টা ৫৮ মিনিটি টানা বক্তব্য রাখেন বিএনপি প্রধান।

সংসদ সচিবালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশে সংসদীয় ব্যবস্থা পুন:প্রবর্তনের পর ৫ম জাতীয় সংসদে প্রধান বিরোধী দল আওয়ামী লীগ ১৩৫ কার্যদিবস সংসদের বাইরে ছিলো। ওই সংসদে মোট কার্যদিবস ছিলো ২৬৫। ৭ম সংসদে প্রধান বিরোধী দল বিএনপি ২১৯ কার্যদিবসের মধ্যে ১৬৩ কার্যদিবস অনুপস্থিত ছিলো। আর ৮ম সংসদে প্রধান বিরোধী দল আওয়ামী লীগ মোট ৩৭৩ কার্যদিবসের মধ্যে সংসদ বর্জন করে ২২৩ কার্যদিবস।

অপরদিকে পঞ্চম সংসদের (১৯৯১-১৯৯৫) বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনা সংসদে ছিলেন ১৩৫ কার্যদিবস। আর ৮ম সংসদে (২০০১-২০০৬) বিরোধী দলীয় নেতা হিসাবে তিনি সংসদে ছিলেন মাত্র ৪৫ কার্যদিবস। অন্যদিকে ৭ম জাতীয় সংসদে (১৯৯৬-২০০১) বিরোধী দলীয় নেতা হিসাবে খালেদা জিয়া সংসদে উপস্থিত ছিলেন মাত্র ২৮ কার্যদিবস। আর নবম অধিবেশনে বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে খালেদা জিয়া এখন পর্যন্ত মাত্র ৮ কার্যদিবস উপস্থিত রয়েছেন।

সংশ্লিষ্টদের মতে, বিএনপির পুরনো দাবি তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনর্বহালের পাশাপাশি এবার তারেক রহমান ইস্যুতে সরকার ও বিরোধী দলের পাল্টাপাল্টি অবস্থান ও বিতর্ক সবচেয়ে বেশি উত্তাপ ছড়াবে অধিবেশনে। বিএনপির পক্ষ থেকে সাম্প্রতিক রাজনৈতিক ইস্যু বিশেষ করে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহাল, বিএনপি নেতা-কর্মীদের জেলে আটক, সভা-সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা, হেফাজতে ইসলামের সমাবেশে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অ্যাকশন ইস্যুতে বির্তকে সরকারের বিরুদ্ধে তুমুল বিষোদগার করা হবে।

অপরদিকে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতি মামলার তথ্য তুলে ধরে বিরোধী দলের প্রতি আক্রমণাত্মক বাক্যবান চালাবে সরকারি দল। এর সঙ্গে হেফাজতে ইসলামকে ব্যবহার করে বিএনপি-জামায়াতের ক্ষমতা দখলের পরিকল্পনা ছিলো বলে দাবি করেও বিতর্ক করবে সরকারি দল।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ