সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪

বেশির ভাগ খাল ভরাট করে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তোলায় সামান্য বৃষ্টিতেই ডিএনডি প্রকল্পে দেখা দেয় জলাবদ্ধতা। এখানকার জালকুঁড়ি ও তক্কাপাড়াসহ আশপাশের এলাকায় এ দুর্ভোগ সম্প্রতি আরো চরমে উঠেছে। পানি নিষ্কাশনের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা না থাকায় একদিকে, বেদখল হয়ে যাওয়া খালগুলো পুনরুদ্ধারের জোর দাবি জানিয়ে আসছেন এলাকাবাসী। অন্যদিকে, পৌর মেয়র বলছেন, খুব দ্রুত এ ধরনের সমস্যা সমাধান করা সম্ভব নয়। নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি শরীফ উদ্দিন সবুজের পাঠানো তথ্য ও ভিডিওচিত্র নিয়ে রিপোর্ট।

বিশাল খাল সংকুচিত হয়ে এখন তা পরিণত হয়েছে ডোবায়। কোথাও খালের একাংশ ভরাট করে নির্মাণ করা হয়েছে পাকা দালান, আবার কোথাও রাস্তা। আগে বিভিন্নস্থানে কালভার্টের ব্যবস্থা থাকলেও এখন আর তা চোখে পড়ে না। একটু বৃষ্টি হলেই জমে যাওয়া পানিতে দুর্ভোগের শেষ নেই এলাকাবাসীর।
NGONG DND
নারায়ণগঞ্জ উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মুনির বলেন, নিজ প্রয়োজনে এলাকার অনেকেই খাল ভরাট করেছেন।

ডিএনডি পাম্প হাউজের নির্বাহী প্রকৌশলী গোলাম সরওয়ার জানান, এর সমাধান ডিএনডি প্রকল্পের হাতে নেই। সিটি কর্পোরেশন এবং ঢাকা ওয়াসা যদি এই প্রকল্প হাতে নেয় তবে এই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র অবশ্য ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভির মতে, বহু বছরের পুরনো এই সমস্যার সমাধান, খুব দ্রুত দেয়া সম্ভব নয়।

১৯৬৪ সালে কৃষিকাজের জন্য নির্মিত ডিএনডি প্রকল্পের অনেকটাই এখন আবাসিক ও শিল্প এলাকায় পরিণত হয়েছে। যার ফলাফল দৈনন্দিনের জলাবদ্ধতা।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ