সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
প্রচ্ছদখেলার সময়১৪ জুন থেকে সুপার কাপ

১৪ জুন থেকে সুপার কাপ

অনিশ্চয়তার অবসান হলো কোটি টাকার সুপার কাপের। ১৪ জুন থেকে মাঠে গড়াচ্ছে সুপার কাপ। গতকাল পেশাদার লিগের আট কাবের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে সভা শেষে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন জানিয়েছেন এ তথ্য। ২৫ জুন ফাইনাল ম্যাচ দিয়ে শেষ হবে এ আসর। আট কাবের সাতটিই টুর্নামেন্টে অংশ নেয়ার সম্মতি জানিয়েছে। বাফুফেকে অপেক্ষায় রেখেছে শুধু মোহামেডান। আজ তাদের সিদ্ধান্ত জানানোর কথা। গতকালের সভায় এভাবেই বাফুফে সভাপতিকে তথ্য দেন মোহামেডানের পরিচালক প্রশাসন লোকমান হোসেন ভূঁইয়া। কাবের অন্য কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেই মতামত জানাবেন লোকমান। তবে গতকাল সভা শেষে বেরিয়ে যাওয়ার সময় মোহামেডানের এই কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, তার দল সুপার কাপে খেলবে না।

গত দুই সুপার কাপের ফাইনালিস্ট মোহামেডান প্রথমবারের চ্যাম্পিয়ন। দ্বিতীয়বার হয়েছিল রানার্সআপ। এবার তারা না খেললে তাদের অপেক্ষায় থাকবে না বাফুফে। সালাউদ্দিন জানান, ‘মোহামেডান না খেললে সাত দল নিয়েই টুর্নামেন্ট।’ ফুটবল সংশ্লিষ্টদের মতে, না খেলা মানে মোহামেডানেরই বড় ক্ষতি। সূত্র মতে, অন্তর্দ্বন্দ্বে খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা তাদের। যদিও কাবের কর্মকর্তাদের বক্তব্য, কয়েক খেলোয়াড়ের ইনজুরি, দুইজনের বিদেশে অবস্থানজনিত কারণেই তাদের খেলা হচ্ছে না।

সুপার কাপে এবার প্রাইজমানিতে পরিবর্তন আসছে। আগের দু’বার চ্যাম্পিয়ন দল কোটি টাকা পেলেও এবার শিরোপা জয়ী দল পাবে ৫০ লাখ টাকা। রানার্সআপ দলের ভাণ্ডারে আগের মতোই ২০ লাখ টাকা জমা পড়বে। চ্যাম্পিয়নশিপের টাকা কমে যাওয়ার কারণ, এবার অংশ নেয়া প্রত্যেক দলকে ১৫ লাখ টাকা করে দেয়া হচ্ছে। শুধু দুই ফাইনালিস্ট ছাড়া। মোট দুই কোটি টাকা বাজেটের বাকি ৪০ লাখের ২০ লাখ টাকা ব্যয় হবে ব্যান্ডিংয়ের জন্য। বাকি ২০ লাখ টাকা অন্যান্য খরচের জন্য। বাফুফে সভাপতি গতকাল আবার জানান, সম্পূর্ণ দেশী খেলোয়াড় নিয়েই হবে সুপার কাপ।

লিগ শেষ, আগামী দলবদলের জন্য প্রস্তুতি সব খেলোয়াড়ের। এ সময়ে তারা সুপার কাপে খেলবেন কি না। মওসুমের তিন শিরোপা জয়ী শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী বলেন, ‘ফুটবলারেরা তো আগস্ট পর্যন্ত কাবের হয়ে খেলতে চুক্তিবদ্ধ।’ খেলোয়াড়দের ইনজুরির জন্য শেখ জামাল প্রথমে খেলতে রাজি না হলেও পরে সম্মতি প্রসঙ্গে কাব সভাপতি মঞ্জুর কাদেরের বক্তব্য, আমার দলের অবস্থা খুবই খারাপ। তারপরও দেশের ফুটবলের বৃহত্তর স্বার্থে খেলতে রাজি হয়েছি আমরা। সালাউদ্দিন ডাকলে তো না এসে পারি না।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ