ব্রেকিং নিউজ

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা

received_2396059930482259বঙ্গবন্ধুর দর্শন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং রেড ক্রিসেন্টের দর্শনের মাঝে এক অসসাধারণ মিল পাওয়া যায়। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকলের জন্য কাজ করে। আপনাদের মধ্যে একটি বিশেষ চেতনা রয়েছে। সেটি হচ্ছে মানবতাবাদী চেতনা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বঙ্গবন্ধুর দর্শনও তাই ছিল। আজ সকালে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৪ তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: আখতারুজ্জামান এসব কথা বলেন।

আজ ২৫ আগস্ট রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মগবাজারস্থ জাতীয় সদর দপ্তর প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: আখতারুজ্জামান। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মাননীয় চেয়ারম্যান জনাব হাফিজ আহমদ মজুমদার, এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সম্মানিত ট্রেজারার এ্যাডভোকেট তৌহিদুর রহমান, সোসাইটির ম্যানেজিং বোর্ডের সম্মানিত সদস্য জনাব লুৎফুর রহমান চৌধুরী হেলাল, এ্যাডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন, জনাব রবীন্দ্র মোহন সাহা ও শেখ রইসুল আলম ময়না। স্বাগত বক্তব্যে রাখেন সোসাইটির মহাসচিব মোঃ ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন (প্রাক্তন সচিব, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার)। অনুষ্ঠানে সোসাইটির সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। সঞ্চালনায় ছিলেন অনুষ্ঠান উদ্যাপন কমিটির আহবায়ক ও পরিচালক (অপারেশন) দুর্যোগ প্রস্তুতি কর্মসুচি (সিপিপি) মো: নুর ইসলাম খান । আলোচনা সভা শেষে বাদ জোহর দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান অতিথি বলেন, “বঙ্গবন্ধু আমদের মাঝে বেঁচে আছেন এবং থাকবেন, তিনি শুধু বঙ্গবন্ধু নন তিনি বিশ্ববন্ধুও। তিনি বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিকে একটি জাতীয় প্রতিষ্ঠানে রুপান্তর করে জনগন এবং মানবতাবাদের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করেন।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমদ মজুমদার, এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধু চলে গেছেন কিন্তু রেখে গেছেন আদর্শকে। যার ওপর ভর করে আমরা পথ চলছি।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব মোঃ ফিরোজ সালাহ উদ্দিন বলেন, “আমরা গর্বিত যে, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া একটি প্রতিষ্ঠান। বঙ্গবন্ধু মানবিক সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিকে কার্যালয় তৈরীতে স্থায়ীভাবে জমিও বরাদ্দ দিয়েছিলেন। আমরা যত বেশি মানুষকে মানবিক সহায়তা দিতে পারব বঙ্গবন্ধুর আত্মা তত বেশি শান্তি পাবে।“

Please follow and like us:

About bdsomoy