ব্রেকিং নিউজ

চট্টগ্রামে হাইটেক পার্ক নির্মাণের প্রস্তাবিত জায়গা পরিদর্শনে প্রযুক্তি মন্ত্রী

দেশব্যাপী আইটি পার্ক নির্মাণের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে চট্টগ্রামেও পার্ক নির্মাণের প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে চট্টগ্রামে তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। পাশাপাশি আইসিটি খাতে আয় বৃদ্ধির সম্ভাবনাও সৃষ্টি হবে। চট্টগ্রামে হাইটেক পার্ক নির্মাণের প্রস্তাবিত জায়গা পরিদর্শনকালে তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এসব কথা বলেন। শুক্রবার সকালে নগরীর কালুরঘাট বিসিক শিল্প এলাকায় হাইটেক পার্ক নির্মাণের জন্য প্রস্তাবিত এ জায়গা পরিদর্শনে যান মন্ত্রী। সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এসময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন। বিসিক শিল্প এলাকার বিএফআইডিসি রোড সংলগ্ন প্রস্তাবিত স্থানটি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নিজস্ব জায়গা। প্রস্তাবিত জায়গা পরিদর্শনে সন্তোষ প্রকাশ করে মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, এটি বিশাল জায়গা। সব দিক দিয়ে উপযুক্ত। পরে এ বিষয়ে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, জায়গা দেখে মন্ত্রী খুবই সন্তুষ্ট হয়েছেন। তিনি বলেছেন, চট্টগ্রাম শহরে এর চেয়ে ভালো জায়গা হতে পারে না। পার্ক নির্মাণ প্রক্রিয়া শুরু করতে উপস্থিত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মন্ত্রী মৌখিক নির্দেশনা দিয়েছেন বলেও জানান মেয়র।
এসময় অন্যদের মধ্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শ্যামসুন্দর সিকদার, প্রযুক্তি মন্ত্রীর একান্ত সচিব খোরশেদ আলম খান, প্রকল্প পরিচালক গৌরি শংকর ভট্টাচার্য্য, সহকারী প্রকল্প পরিচালক মো. কামরুল ইসলাম, চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবু শাহেদ চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমদ ও হ্যালো ওয়ার্ল্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজবাহ উদ্দিন চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রস্তাবিত একটি স্থান পরির্দশন করেন।

চসিক সূত্রে জানা গেছে, হাইটেক পার্কের জন্য প্রস্তাবিত জায়গা নিয়ে ইতোপূর্বে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। চান্দগাঁও এলাকায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নিজস্ব এই সম্পত্তি পার্ক কর্তৃপক্ষকে দেওয়া হচ্ছে। তাছাড়া আগ্রাবাদে চসিকের নিজস্ব একটি মার্কেট ঊর্ধ্বমুখী সমপ্রসারণ করা হচ্ছে। মার্কেটটির ষষ্ঠ থেকে দশম তলা পর্যন্ত ফ্লোরে হাইটেক পার্ক নির্মাণ করবে কর্তৃপক্ষ। চট্টগ্রামে তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টি, জনসাধারণের মাঝে ডিজিটাল সেবা নিশ্চিতকরণে এই পার্ক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।
বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তথ্য-প্রযুক্তি শিল্পের বিকাশ ও বিস্তার ঘটানো, নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি, আর্থ-সামাজিক সমৃদ্ধি অর্জন, দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করা এবং শিল্প উদ্যোক্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ দেশের বিভিন্ন স্থানে হাইটেক পার্ক, আইটি পার্ক ও সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক স্থাপনের কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। চট্টগ্রামে ৩টিসহ সারা দেশে মোট ২৮টি হাইটেক পার্ক স্থাপন করার উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে গাজীপুর, যশোর, ঢাকার কাওরান বাজারে হাইটেক পার্ক নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

Please follow and like us:

About bdsomoy