মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪
প্রচ্ছদচট্রগ্রাম প্রতিদিনহরতালের নামে সহিংসতা সৃষ্টিকারী রাজনৈতিক দলগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সরকার নতুন আইন...

হরতালের নামে সহিংসতা সৃষ্টিকারী রাজনৈতিক দলগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সরকার নতুন আইন প্রণয়নের চিন্তা করছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ম.খা আলমগীর

canberহরতালের নামে সহিংসতা সৃষ্টিকারী রাজনৈতিক দলগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সরকার নতুন আইন প্রণয়নের চিন্তা করছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দিন খান আলমগীর। তিনি বলেছেন,‘হরতাল রাজনৈতিক দলগুলোর একটি অধিকার। কিন্তু এই হরতালের নামে অন্যের গাড়িতে আগুন দিয়ে ধ্বংসাত্বক কর্মকাণ্ড কোন ভাবেই কাম্য নয়। এ বিষয়ে একটি আইন প্রনয়ণের চিন্তা করছে সরকার। হরতালের নামে যে রাজনৈতিক দলগুলো ধ্বংসাত্বক কর্মকাণ্ড করবে তাদের সেই ক্ষতিপূরণ দিতে হবে এবং তাদের নিবন্ধন বাতিল করা হবে।’ বৃহস্পতিবার বিকেলে চট্টগ্রাম চেম্বার মিলনায়তনে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দিন খান আলমগীর এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন,‘দেশ ও জনগণের স্বার্থে হরতাল দিয়ে আন্দোলন করা যুক্তিসংগত।মহাত্ম গান্ধীও শান্তিপূর্ণ হরতাল দিয়েছেন। জনস্বার্থে হরতাল দিয়েছেন বঙ্গবন্ধুও। কিন্তু ছোট ছোট বিষয়গুলো নিয়ে হরতালের নামে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে দেশ ও শ্রমের অবমাননা করা হচ্ছে।’ ড. মহীউদ্দিন খান আলমগীর বলেন,‘দেশের উন্নয়নে উৎপাদন ও শ্রমের উৎপাদন বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। কিন্তু হরতালের নামে সহিংসতা সৃষ্টি করে তা ব্যহত করা হচ্ছে।’ অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে হরতালের সংস্কৃতি শেষ হয়ে গেছে বলেও মন্তব্য করেন। বিরোধী দলের নেতাদের বন্দির বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,‘বিরোধীদলের নেতাদের বিরোধী হিসেবে কারাগারে পাঠানো হয়নি। সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ফৌজদারী আইনের মাধ্যমেই তাদের বিচার হচ্ছে।’

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সদস্য এম এ লতিফ, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সদস্য সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি নওশের আলী, নগর পুলিশ কমিশনার মো.শফিকুল ইসলাম, জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির সভাপতি সাংসদ মাঈনুদ্দিন খান বাদলসহ চেম্বার পরিচালকরা বক্তব্য দেন।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ