মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪
প্রচ্ছদখেলার সময়দেশের ক্রিকেটে কেলেঙ্কারি নিয়ে চুপ মুশফিক ও বোর্ড কর্মকর্তারা

দেশের ক্রিকেটে কেলেঙ্কারি নিয়ে চুপ মুশফিক ও বোর্ড কর্মকর্তারা

দেশের ক্রিকেটে ম্যাচ গড়াপেটা নিয়ে উথালপাথাল চলছে। বিপিএলে ম্যাচ পতানোর সঙ্গে দেশের শীর্ষ ক্রিকেটারদের নাম এসেছে। অভিযোগ উঠেছে চিটাগং কিংস এবং বরিশাল বাMusfiqর্নার্সের সঙ্গে ম্যাচ পাতিয়েছে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরস। এনিয়ে আইসিসির দুর্নীতিদমন বিভাগের কর্মকর্তারা এসে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের ক্রিকেটারদের জিজ্ঞাসাবাদও করেছেন।

গ্ল্যাডিয়েটরসের বিদেশি ক্রিকেটারদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে আকসু। ক্রিকেটাঙ্গনে এনিয়ে উদ্বেগ উৎকণ্ঠার শেষ নেই। খবর বেরিয়েছে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক এবং ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের খেলোয়াড় মোহাম্মদ আশরাফুল আকসুর কাছে ম্যাচ পাতানোর সাথে জড়িত থাকার দায় স্বীকার করেছেন। কিন্তু বোর্ড কর্মকর্তারা এনিয়ে একেবারেই চুপ।

ক্রিকেটারদের জড়িত থাকার বিষয়টি একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছে না খোদ বিসিবি কর্তা ব্যক্তিরা। কেবল কোড অব কন্ডাক্টের জন্য মুখ খুলছে না কেউ। জাতীয় দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমকে সোমবার এনিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি এবিষয়ে কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করলেন,‘এই ইস্যুতে কিছু বলা ঠিক হবে না। বিষয়টি স্পর্শকাতর এবং আকসুর তদন্তাধীন।’

দেশের ক্রিকেটের দুর্নীতি নিয়ে না বললেও আইপিএলে সম্প্রতি যে কালিমা লেগেছে এব্যাপারে শঙ্কিত মুশফিক,‘বিশ্বে ক্রিকেট অনেক জনপ্রিয় একটা খেলা। এরকম দুর্নীতি হলে একটু খারাপ তো লাগেই। খেলোয়াড় হিসেবে আমাদের আরেকটু সতর্ক থাকা উচিৎ।’

ক্রিকেটে পাতানো খেলার প্রচলন অনেক পুরনো। দক্ষিণ আফ্রিকার (প্রয়াত) হ্যান্সি ক্রনিয়ে, ভারতের সাবেক অধিনায়ক আজহার উদ্দিন নিষিদ্ধ হয়েছেন। স্পট ফিক্সিংয়ে পাকিস্তানের তিন ক্রিকেটার মোহাম্মদ আমির, সালমান বাট এবং মোহাম্মদ আসিফ আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় রয়েছেন। সম্প্রতি আইপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে ভারতের টেস্ট ক্রিকেটার শ্রীশান্ত দেশটির পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন। ক্রিকেট দুর্নীতির কালো থাবা যে বাংলাদেশেও পড়েছে তা কারও অজানা নয়। ক্রিকেটের মতো ভদ্র খেলায় এসব অপ্রত্যাশিত মুশফিকের কাছে,‘ক্রিকেটার হিসেবে যখন দেখি খেলার ভেতরে এরকম দুর্নীতি ঢুকে গেছে তখন খারাপ তো লাগেই। আশা করি ব্যাপারটা আইসিসি দেখবে এবং আমাদের বোর্ড তো সতর্ক রয়েছেই।’

ক্রিকেটারদের মধ্যে এসম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির ওপরও জোর দেন বাংলাদেশ অধিনায়ক,‘সচেতনতা বাড়ানো অবশ্যই দরকার। এরকম একটা ভদ্র খেলায় সাধারণ ভুল হওয়া উচিৎ না। এটা খেলোয়াড়দের ওপর নির্ভর করে। তারা যদি দেশের কথা চিন্তা করে, তাহলে কখনোই এটা হওয়া উচিৎ না।’

আরও পড়ুন

সর্বশেষ