রবিবার, মে ১৯, ২০২৪
প্রচ্ছদসারা বিশ্বজুতা থেকে বিদ্যুত উৎপাদনের পদ্ধতি বের করেছে আমেরিকার হিউস্টনের রাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের চার...

জুতা থেকে বিদ্যুত উৎপাদনের পদ্ধতি বের করেছে আমেরিকার হিউস্টনের রাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের চার ছাত্র

জুতা থেকে বিদ্যুত উৎপাদনের পদ্ধতি বের করেছে আমেরিকার হিউস্টনের রাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের চার ছাত্র। ‌এই জুতা পায়ে দিয়ে হাঁটলে আরামে কেবল পথ চলাই হবে না বরং প্রতি পদক্ষেপে বিদ্যুতও উদপাদিত হবে। এ বিদ্যুত দিয়ে অনায়াসে সেল ফোন, ট্যাবলেট পিসির মতো বহনযোগ্য ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রপাতির শক্তি যোগানো যাবে বলে দাবি করেছে তারা।
তবে এখানেই থেমে যায়নি আমেরিকার হিউস্টনের রাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের যন্ত্র-প্রকৌশলী বিভাগের এই চার ছাত্র। তারা বলছেন, এ জুতার কল্যাণে ভবিষ্যতে জীবন রক্ষার কাজে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতিরও শক্তি যোগান সম্ভব হবে। টেক্সাস মেডিক্যাল সেন্টারের অন লাইন সংবাদে এ খবর প্রকাশিত হয়েছে।
এ চার ছাত্রের নাম হলো, ক্যারিয়োস আর্মাডা, জুলিয়ান কাস্ত্রো, ডেভিড মোরিল্লা এবং টেইলার ওয়েস্ট। এর আগে জুতা থেকে বিদ্যুত তৈরির চেষ্টা হয়েছে এবং এ জন্য হাঁটুর গতিকে ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু এ চার ছাত্র হাঁটুর বদলে পায়ের গোড়ালিকে বেছে নেন। তারা দেখতে পান হাঁটার সময় সবচেয়ে শক্তি প্রয়োগ করা হয় পায়ের গোড়ালিতে। সুতরাং বিদ্যুত তৈরির জন্য পায়ের এ অংশকেই বেছে নিলেন তারা। বিদ্যুত তৈরির যন্ত্র বসালেন জুতার গোড়ালিতে। এ ভাবে তৈরি হলো পেডআইপাওয়ার নামের বিদ্যুত উৎপন্নকারী জুতা। ৪০০ মিলিওয়াট বিদ্যুত উৎপন্ন করে এ জুতা। এ বিদ্যুত তার দিয়ে কোমরে বাধা ব্যাটারি প্যাকে জমা হতে থাকে। অবশ্য এখনো এ জুতার সব সমস্যার সমাধান হয়ে যায়নি। পরীক্ষামূলক জুতাটি আকারে বেশ বড়। প্রতিদিন পরে ঘোরাফেরা করা যাবে না। এ ছাত্ররা মনে করছেন, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্য একটি দল আগামী শরতকালে তাদের প্রকল্প হিসেবে এ জুতাকে বেছে নিবেন এবং জুতার সব সমস্যার সমাধান করবে।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ