মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪
প্রচ্ছদশিক্ষাঙ্গনএকাদশ শ্রেণীতে ভর্তি: মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ

একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি: মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ

চলতি শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বোর্ডের অধীনে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির জন্য মনোনীতদের জন্য তালিকা প্রকাশ করেছে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড। আদালতের রায় পাওয়ার পর একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির জন্য মনোনীত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করলো ঢাকা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।
তবে, কেবল নটর ডেম কলেজের বেলায় এই পদ্ধতি প্রযোজ্য হচ্ছে না। নটর ডেম কলেজে ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে ভর্তি হতে হবে। কিন্তু অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নীতিমালা অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষা ছাড়াই একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি করা যাবে—আপিল বিভাগের এমন নির্দেশনার পর ঢাকা শিক্ষা বোর্ড এই তালিকা প্রকাশ করেছে।
ইতিমধ্যেই ওয়েবসাইটে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এ ছাড়া মুঠোফোনের মাধ্যমেও ফলাফল পাওয়া যাবে। হাইকোর্টের নির্দেশনা থাকায় গতকাল রবিবার  ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত করেছিল ঢাকা বোর্ড।

 

যেসব কলেজে অনলাইনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হচ্ছে তাদের তালিকা বোর্ড থেকে প্রকাশ করা হয়েছে। আর যারা অনলাইনে ভর্তি করাচ্ছে না তারা কলেজের নোটিশ বোর্ডে মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করেছে।

সোমবার সকালে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের এক আদেশে বলা হয়, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নীতিমালার ওপর হাই কোর্ট যে স্থগিতাদেশ দিয়েছে, তা কেবল নটরডেম কলেজের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে।

এরপর দুপুরে মনোনীত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করে ঢাকা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

এসএসসির জিপিএর ভিত্তিতে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির বাধ্যবাধকতা রেখে গত ১৬ মে এই নীতিমালা জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

কিন্তু নটরডেম কলেজ কর্তৃপক্ষ ওই সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার আবেদন জানালে হাই কোর্ট গত ২ জুন এক আদেশে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নীতিমালার কার্যকারিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করে।

পাশাপাশি ওই নীতিমালা কেন বেআইনি ও অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে একটি রুলও জারি করে বিচারপতি এম মোয়াজ্জাম হোসেন ও বিচারপতি মো. হাবিবুল গনির বেঞ্চ।

ভর্তির জন্য মনোনীতদের তালিকা রবিবার প্রকাশের কথা থাকলেও উচ্চ আদালতের এই নির্দেশনার কারণে তা স্থগিত রাখা হয়।

এরপর ঢাকা শিক্ষা বোর্ড হাই কোর্টের ওই আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করলে চেম্বার বিচারপতি গত ৫ জুন বিষয়টি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠিয়ে দেন। সোমবার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ বিষয়টির শুনানি করে হাই কোর্টের আদেশ সংশোধন করে দেয়।

চলতি বছরের ৯ মে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়।এবার ১১ লাখ ৫৪ হাজার ৭৭৮ জন শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ