ব্রেকিং নিউজ
Home / আরো খবর……

আরো খবর……

করোনা ভ্যাকসিনকে পুঁজি করে শত কোটি ডলার পকেটে ভরছেন করপোরেট নির্বাহীরা!

BC3E3902-57D2-4858-AEE9-24308DBBD125

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। এই ভাইরাসের তাণ্ডবে দিশেহারা বিশ্বের ২১৩টি দেশ। সবচেয়ে শোচনীয় অবস্থা বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র আমেরিকার।  ব্রিটেন, ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স ও ব্রাজিলও পরিণত হয়েছে ধ্বংসযজ্ঞে।  এখনও পর্যন্ত কার্যকরী কোনও প্রতিধেষক আবিষ্কার সম্ভব না হওয়ায় বিশ্বব্যাপী বেপরোয়া ...

বিস্তারিত »

তাজউদ্দীন আহমদের ৯৫ তম জন্মবার্ষিকী ২৩ জুলাই

0412843C-3756-47A7-BBF4-E16D78E10B25

 ২৩ জুলাই ২০২০ মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রথম প্রধানমন্ত্রী, জাতীয়নেতা তাজউদ্দীন আহমদের ৯৫ তম জন্মবার্ষিকী। ১৯২৫ সালের ২৩ জুলাই ঢাকার অদূরে কাপাসিয়ার দরদরিয়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহন  করেন। তাজউদ্দীন আহমদ বাংলাদেশের রাজনীতিতে মেধা, দক্ষতা, যোগ্যতা, সততা ও আদর্শবাদের অনন্য এক প্রতীক। তাজউদ্দীন আহমদ অল্পবয়সে ছাত্রজীবনেই সমাজসেবার মধ্যদিয়ে রাজনীতিতে জড়িত হন। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর থেকে এদেশে ভাষার অধিকার, অর্থনৈতিক মুক্তি এবং সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী যত আন্দোলন হয়েছে তার প্রতিটিতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। আওয়ামী লীগের গঠন প্রক্রিয়ার মূল উদ্যোক্তাদের তিনি একজন। ১৯৬৬ সালে তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ওই বছরই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির মুক্তি সনদ ৬ দফা ঘোষণা করেন। ৬ দফার অন্যতম রূপকার ছিলেন তাজউদ্দীন আহমদ। তাজউদ্দীন আহমদ ছিলেন বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর। ১৯৭০ সালের পাকিস্তানের নির্বাচনের পর সামরিক শাসক গোষ্ঠী আওয়ামী লীগের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর না করলে ১৯৭১ সালের মার্চ মাসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে শুরু হয় অসহযোগ আন্দোলন। এই অসহযোগ আন্দোলন পরিচালনায় তাজউদ্দীন আহমদ যথেষ্ট সাংগঠনিক দক্ষতা ও বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দেন। এরপর ২৬ মার্চ রাতের প্রথম প্রহরে পাকিস্তান সামরিক বাহিনী বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতারের পর শুরু করে একতরফা হত্যাযজ্ঞ। বঙ্গবন্ধুর ডাকে শুরু হয় বাঙালির সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ। বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে তখন নেতৃত্বের মূল দায়িত্ব অর্পিত হয় তাজউদ্দীন আহমদের ওপর। তাঁর জীবনের শ্রেষ্ঠ কীর্তি ১৯৭১ সালে এক চরম সংকটময় মুহূর্তে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার গঠন করে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে সফল ভূমিকা পালন। এই গুরু দায়িত্ব তাজউদ্দীন আহমদ অত্যন্ত সূনিপুন ভাবে পালন করেন যার ফলে মাত্র নয় মাসের মধ্যে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জিত হয়। স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন পর্যন্ত তাজউদ্দীন আহমদ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। এরপর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বধীন সরকারে তিনি অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রীর দায়িত্ব নেন। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে ১৯৭৪ সালের ২৬ অক্টোবর তিনি মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ক্ষমতা দখলকারী ঘাতকচক্র নিমর্মভাবে সপরিবারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে হত্যার পর তাজউদ্দীন আহমদকে গৃহবন্দি করে। এরপর তাঁকে জেলখানায় বন্দি করে রাখা হয়। বন্দি থাকা অবস্থায় তাঁকে এবং আরো তিন জাতীয় নেতাকে জেলখানার ভেতরে ঢুকে’৭৫ এর ৩ নভেম্বর ঘাতকচক্র নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করে। ২৩ জুলাই ২০২০ মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রথম প্রধানমন্ত্রী, জাতীয়নেতা তাজউদ্দীন আহমদের ৯৫ তম জন্মবার্ষিকী। ১৯২৫ সালের ২৩ জুলাই ঢাকার অদূরে কাপাসিয়ার দরদরিয়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহন  করেন। তাজউদ্দীন আহমদ বাংলাদেশের রাজনীতিতে মেধা, দক্ষতা, যোগ্যতা, সততা ও আদর্শবাদের অনন্য এক প্রতীক। তাজউদ্দীন আহমদ অল্পবয়সে ছাত্রজীবনেই সমাজসেবার মধ্যদিয়ে রাজনীতিতে জড়িত হন। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর থেকে এদেশে ভাষার অধিকার, অর্থনৈতিক মুক্তি এবং সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী যত আন্দোলন হয়েছে তার প্রতিটিতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। আওয়ামী লীগের গঠন প্রক্রিয়ার মূল উদ্যোক্তাদের তিনি একজন। ১৯৬৬ সালে তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ওই বছরই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির মুক্তি সনদ ৬ দফা ঘোষণা করেন। ৬ দফার অন্যতম রূপকার ছিলেন তাজউদ্দীন আহমদ। তাজউদ্দীন আহমদ ছিলেন বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর। ১৯৭০ সালের পাকিস্তানের নির্বাচনের পর সামরিক শাসক গোষ্ঠী আওয়ামী লীগের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর না করলে ১৯৭১ সালের মার্চ মাসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে শুরু হয় অসহযোগ আন্দোলন। এই অসহযোগ আন্দোলন পরিচালনায় তাজউদ্দীন আহমদ যথেষ্ট সাংগঠনিক দক্ষতা ও বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দেন। এরপর ২৬ মার্চ রাতের প্রথম প্রহরে পাকিস্তান সামরিক বাহিনী বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতারের পর শুরু করে একতরফা হত্যাযজ্ঞ। বঙ্গবন্ধুর ডাকে শুরু হয় বাঙালির সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ। বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে তখন নেতৃত্বের মূল দায়িত্ব অর্পিত হয় তাজউদ্দীন আহমদের ওপর। তাঁর জীবনের শ্রেষ্ঠ কীর্তি ১৯৭১ সালে এক চরম সংকটময় মুহূর্তে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার গঠন করে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে সফল ভূমিকা পালন। এই গুরু দায়িত্ব তাজউদ্দীন আহমদ অত্যন্ত সূনিপুন ভাবে পালন করেন যার ফলে মাত্র নয় মাসের মধ্যে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জিত হয়। স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন পর্যন্ত তাজউদ্দীন আহমদ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। এরপর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বধীন সরকারে তিনি অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রীর দায়িত্ব নেন। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে ১৯৭৪ সালের ২৬ অক্টোবর তিনি মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ক্ষমতা দখলকারী ঘাতকচক্র নিমর্মভাবে সপরিবারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে হত্যার পর তাজউদ্দীন আহমদকে গৃহবন্দি করে। এরপর তাঁকে জেলখানায় বন্দি করে রাখা হয়। বন্দি থাকা অবস্থায় তাঁকে এবং আরো তিন জাতীয় নেতাকে জেলখানার ভেতরে ঢুকে’৭৫ এর ৩ নভেম্বর ঘাতকচক্র নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করে।

বিস্তারিত »

বঙ্গবন্ধুর নাতনি সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল সিভিএফ-এর ‘থিমেটিক অ্যাম্বাসেডর’ মনোনীত

saima wazad

ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরাম (সিভিএফ) ন্যাশনাল অ্যাডভাইসরি কমিটি অন নিউরোডেভেলপমেন্টাল ডিজঅর্ডার্স অ্যান্ড অটিজম-এর চেয়ারপারর্সন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন-কে ‘ভালনারেবিলিটি’ থিমেটিক বিভাগের অধীনে ‘থিমেটিক অ্যাম্বাসেডর’ হিসেবে মনোনীত করেছে। সায়মার পাশাপাশি, সিভিএফ মালদ্বীপের সাবেক স্পিকার ও প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ, ফিলিপাইনের পার্লামেন্টের ডেপুটি স্পিকার লোরেন ...

বিস্তারিত »

অতিরিক্ত সচিব জাহাঙ্গীর আলম উজবেকিস্তানে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত

6A55DAF5-C0CF-411E-B946-DCEBDBB10643

উজবেকিস্তানে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত হলেন মো. জাহাঙ্গীর আলম। দেশটিতে বর্তমানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করা পররাষ্ট্র ক্যাডারের ৮৪ ব্যাচের কর্মকর্তা মসুদ মান্নানের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন প্রশাসন ক্যাডারের ৮৬ ব্যাচের এ কর্মকর্তা। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গিয়েছে। তিনি বর্তমানে পররাষ্ট্র ...

বিস্তারিত »

৩৮তম বিসিএসে নন-ক্যাডার পদে আবেদন শুরু

PSC

৩৮তম বিসিএসে উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। আগ্রহী প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদন করতে বলা হয়েছে। ১৪ জুলাই সকাল ১০টায় শুরু হয় এ প্রক্রিয়া। চলবে আগামী ২৮ জুলাই বিকেল ৫টা ...

বিস্তারিত »

প্রধানমন্ত্রীর এপিএস-সেনা কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণা করতেন শাহেদ

33CB231F-5E09-403A-B1FB-ED413A94B49B

প্রধানমন্ত্রীর এপিএস পরিচয়ে হুমকি দেয়ার পাশাপাশি ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণাসহ নানা ধরনের অপকর্ম করে গেছেন আলোচিত রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান শাহেদ করিম। ঢাকা শহরের বাইরে চলাচলের সময় পেয়েছেন পুলিশী নিরাপত্তা। এমনকি অপকর্ম ফাঁস হয়ে যাওয়ার ভয়ে এক কর্মচারীর পুরো পরিবারকে ...

বিস্তারিত »

নোয়াখালী করোনা হাসপাতালে আইসিইউ-ভেন্টিলেটর দিলেন ওবায়দুল কাদের

o kader venteletion

নোয়াখালীতে স্থাপিত কোভিড-১৯ হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় নিজ খরচে দু’টি আইসিইউ-ভেন্টিলেটর দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ২২ জুন সকালে সংসদ ভবন এলাকায় সরকারি বাসভবনে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ...

বিস্তারিত »

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমেদ কামরান এর মৃত্যুতে ভূমিমন্ত্রীর শোক

javed mpg

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রথম নির্বাচিত মেয়র, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এবং সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ এর সাবেক সভাপতি বদর উদ্দিন আহমেদ কামরান-এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী, এমপি। এক শোক বার্তায় মন্ত্রী জানান, “মেয়র হিসেবে ...

বিস্তারিত »

বিয়ন্ড দ্যা প্যানডেমিকঃ ‘জীবন ও জীবিকার বাজেট’ ষষ্ঠ পর্ব ১৩ই জুন

BTP

করোনা সংকট নিয়ে বিশেষ অনলাইন আলোচনা অনুষ্ঠান ‘বিয়ন্ড দ্যা প্যানডেমিক’ এর ষষ্ঠ পর্ব অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৩ই জুন রাত ৮.৩০ মিনিটে। বরাবরের মতোই পর্বটি সরাসরি প্রচারিত হবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ www.facebook.com/awamileague.1949 এবং অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে https://www.youtube.com/user/myalbd। একই ...

বিস্তারিত »

পৃথিবীর বড় বড় শহরে সিকদার পরিবারের বিপুল বিনিয়োগ

Sikder Family

চলতি বছরের জানুয়ারিতে ক্যারিবিয়ান দ্বীপরাষ্ট্র সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসে কার্যক্রম শুরু করে কয়ি রিসোর্ট অ্যান্ড রেসিডেন্স। যেটি পরিচালনা করছে বিশ্বখ্যাত হিলটন কর্তৃপক্ষ। বিনিয়োগের বিপরীতে নাগরিকত্ব সুবিধার আওতায় ৫৩ হাজার জনসংখ্যার দেশটিতে এ চার তারকা হোটেল গড়ে তোলা হয়েছে। এই কয়ি ...

বিস্তারিত »