ব্রেকিং নিউজ

পটিয়া পৌরসভার সাবেক মেয়র শামসুল মাস্টারের স্ত্রী ছেলের গুলিতে নিহত

পটিয়া পৌরসভার সাবেক মেয়র শামসুল আলম মাস্টারের স্ত্রী জেসমিন আক্তার তার সন্তান মাইনুলের গুলিতে নিহত হয়েছেন। শামসুল আলম মাস্টারের মৃত্যুর এক মাস ২ দিনের মাথায় এই ঘটনা ঘটলো। ১৬ আগস্ট বেলা পৌনে ২টার দিকে পটিয়া পৌরসভার সাবেক মেয়র শামসুল আলম মাস্টারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পৈত্রিক সম্পত্তির ভাগাভাগির দ্বন্দ্বের জের ধরে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। ৩৩ বছর বয়সী মাইনুল চট্টগ্রামের চকবাজার এলাকায় থাকেন। তিনি বিবাহিত। যুবলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন তিনি।

জেসমিনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পটিয়া পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গোফরান রানা। তিনি বলেন, ‘কে গুলি করছে তা দেখিনাই। ওই হৃদয়বিদারক ঘটনা কোনোভাবেই মেনে নেওয়ার নয়। শুনেছি ছেলে মাইনুল গুলি করে মাকে হত্যা করেছে। সে নেশাগ্রস্ত ছিল। বাবার জীবদ্দশায়ও সে বাবা মা দুজনের অবাধ্য ছিল। পটিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক তদন্তে পিস্তলের গুলি বলে শুনা যাচ্ছে।

গত ১৩ জুলাই বার্ধক্যজনিত কারণে মারা যান জাতীয় পার্টির (এরশাদ) কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও পটিয়া পৌরসভার সাবেক প্রথম মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুল আলম মাস্টার। তার বিপুল সম্পত্তি রয়েছে। তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে। এর মধ্যে মেয়ে অস্ট্রেলিয়ায় থাকে। জানা গেছে বাবার মৃত্যুর পর থেকেই মাইনুলের অভিযোগ ছিল তা মা তাকে ও তার ভাইকে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করে বোনকে সব সম্পত্তি দিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে।

About bdsomoy