ব্রেকিং নিউজ

করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ১৫.৫৩ শতাংশ

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত দেশে করোনায় মোট মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ১৬২ জনের। এদিন নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৯০২ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৭৮ হাজার ৬৮৯ জন। বুধবার  করোনায় শনাক্তের হার ছিল ১৩ দশমিক ২২ শতাংশ। আজ তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ দশমিক ৫৩ শতাংশে। ৩ জুলাই বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনা বিষয়ক এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩০৭ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ আট হাজার ২৯৭ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৮০টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৩৪৮টি এবং মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৩৪৬টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি ৪৩ লাখ ৮০ হাজার ৯৭৭টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৫৩ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৪৪ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৭ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় মৃত দুই জনের মধ্যে এক জন পুরুষ এবং এক জন নারী এবং তাদের বয়স শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে একজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। মৃত দুই জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের এক জন, চট্টগ্রাম বিভাগের এক জন রয়েছেন। মৃতদের মধ্যে দুই জনই সরকারি হাসপাতালে মারা যান।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ১০৪ জন এবং আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ২৬ জন। এ পর্যন্ত মোট আইসোলেশনে এসেছেন চার লাখ ৪৪ হাজার ৯২৭ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন চার লাখ ১৪ হাজার ৮৯৮ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩০ হাজার ২৯ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

About bdsomoy