ব্রেকিং নিউজ

আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস উপলক্ষে রোমে বাংলাদেশ দূতাবাস কর্তৃক সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স প্রেরণকারীদের সম্মাননা প্রদান

আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস-২০২ উপলক্ষে ইতালির রোমস্থ, বাংলাদেশ দূতাবাস দুজন মহিলাসহ ০ জন প্রবাসী বাংলাদেশী এবং ০১ টি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকেরেমিট্যান্স পুরস্কারপ্রদান করেছেসোমবার (২০ ডিসেম্বর) বিকাল ০৫ টায় দূতাবাসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়। ইতালি থেকে বাংলাদেশে জুলাই ২০২০ থেকে জুন ২০২ সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স প্রেরণকারী হিসেবে তাঁদেরকে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।  ইতালিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ শামীম আহসান এ পুরস্কার বিতরণ করেন। 

দূতাবাস কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিল পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত, দিবসটি উপলক্ষে প্রদত্ত রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী এবং প্রবাসী কল্যাণবৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব এর বাণী পাঠ, আলোচনা সভা এবং পুরস্কার বিতরণ আলোচনা সভার শুরুতে দূতাবাসের কাউন্সেলর (শ্রমকল্যাণ) মোঃ এরফানুল হক প্রবাসীদের অধিকার রক্ষা, তাদের কল্যাণ এবং বৈধপথে রেমিট্যান্স প্রেরণে প্রবাসীদের উদ্বুদ্ধকরণে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক গৃহীত পদক্ষেপসমূহসহ দূতাবাসেরভূমিকার উপর একটি প্রতিবেদন পেশ করেন। রেমিট্যান্স পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে উক্ত অনুষ্ঠানে সশরীরে উপস্থিত দুজন এবং ডিজিটালমাধ্যমে যুক্ত পাঁচজন বক্তব্য প্রদান করেনতাঁরা এ স্বীকৃতি প্রদানের জন্য দূতাবাসকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

রাষ্ট্রদূত আহসান তাঁর বক্তব্যে পুরস্কার প্রাপ্তদের সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান এবং সেই সাথে রেমিট্যান্স প্রেরণের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য প্রবাসী সকল বাংলাদেশীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন  রাষ্ট্রদূত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে উল্লেখ করেন যে, ২০২১ বছরটি মুজিববর্ষ (জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানেরজন্মশত বার্ষিকী উদ্‌যাপন) এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতাবিজয়েরসুবর্ণ জয়ন্তীর কারণে খুবই তাৎপর্য্যপূর্ণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারকে তিনিপ্রবাসী-বান্ধব সরকারউল্লেখ করে এবারের প্রতিপাদ্য (theme) “শতবর্ষে জাতির পিতা, সুবর্ণেস্বাধীনতা অভিবাসনে আনবো মর্যাদানৈতিকতা”- কে সামনে রেখে সরকার কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরেন। জনাব আহসান বৈধঅভিবাসনের পক্ষে বাংলাদেশ সরকারের দৃঢ় অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্তকরেনতিনি আরো বলেন, করোনা মহামারীর কারণে বিভিন্ন দেশে আটকে পড়া বাংলাদেশীদের দেশে ফেরত আনা এবং চাকুরি হারানো ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসীদেরকে বাংলাদেশ সরকারের আর্থিক সাহায্য প্রদানের বিষয়টিও উল্লেখ করেনইতালি প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, পাসপোর্ট সংক্রান্ত সমস্যা সমাধান  এবং অন্যান্য সেবার মান বৃদ্ধি করার জন্য দূতাবাস  আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে 

২০২ সালের  “রেমিট্যান্স পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন: ব্যক্তি ক্যাটাগরি (পুরুষ) মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর ফরাজী, কার্ত্তিক চন্দ্র ঘোষ, শাহাজালাল মিলন, রায়হান মোহাম্মদ উদ্দিন রাসেল এবং ব্যক্তি ক্যাটাগরি  (মহিলা) হাবিবা কবিরমেহেনাস তাব্বাসুম প্রতিষ্ঠান ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন বাংলা এসআরএল (Bangla SRL)  

বৈধপথে রেমিট্যান্স প্রেরণকারীদের উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে ২০১৯ সালে বাংলাদেশ দূতাবাস, রোমরেমিট্যান্স পুরস্কারচালু করে।  উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবসে (১৮ ডিসেম্বর) অনিবার্যকারণবশতঃ অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। হাইব্রিডফরমেটে আয়োজিত অনুষ্ঠানে দূতাবাসের কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ এবং পুরস্কার প্রাপ্ত ব্যক্তিগণের মধ্যে দুজন সশরীরে উপস্থিত ছিলেনপুরস্কারপ্রাপ্ত অপর পাঁচজন ডিজিটাল মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন। মহামারীর ভয়াবহতার প্রেক্ষিতে ইতালি সরকার কর্তৃক আরোপিত কঠোর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সীমিত পরিসরে এ অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয়। 

About bdsomoy