ব্রেকিং নিউজ

প্রতি মাসে ইউনিট আওয়ামী লীগের সভা করার নির্দেশ

প্রতি মাসে ইউনিট কমিটিকে নিয়ে কার্যকরী সভা করার জন্য ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতাদের নির্দেশনা দিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ১৩ সেপ্টেম্বর নগর আওয়ামী লীগের ৪৩ ওয়ার্ড জুড়ে বৃক্ষ চারা বিতরণ কর্মসূচীতে অংশ নিয়ে প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি এ নির্দেশনা দেন। নগর আওয়ামী লীগের চলমান এ কর্মসূচির অংশ হিসেবে আন্দরকিল্লা ওয়ার্ড, উত্তর আগ্রাবাদ ওয়ার্ড ও পাঠামটুলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মাঝে গাছের চারা বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত  হয়েছে।

এই উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান  বক্তার বক্তব্যে আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, সংগঠনের মূল ভিত্তি তৃণমূল নেতাকর্মী। তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মাঝে সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করা আজ সময়ের দাবি। কাগজে কলমে ইউনিট কমিটিতে অনেকেই পদে আছেন। কিন্তু সাংগঠনিক কোন কর্মকাণ্ডে তাদের দেখা যাচ্ছে না। বাহ্য দৃষ্টিতে দলের সাংগঠনিক শক্তি দৃশ্যমান হলেও বাস্তবতা ভিন্ন। ৪৩ ওয়ার্ডে ১২৯ টি ইউনিট কমিটি রয়েছে। একেকটা কমিটির বয়সও ১৫-২০ হয়েছে। নেতারা অনেকেই সংগঠন নিয়ে কোন খবরও রাখেন না। এমন অবস্থা আর চলতে দেয়া যায় না।

তিনি আরো বলেন, ‘ওয়ার্ড কমিটি নেতৃবৃন্দ ইউনিটকে নিয়ে প্রতি মাসে কার্যকরী সভা করবেন। যারা আসবেন না তাদেরকে চিঠি পাঠাবেন। পরপর তিন মিটিংয়ে অনুপস্থিত থাকলে অনুপস্থিত থাকা নেতাদের ব্যাপারে প্রতিবেদন তৈরি করে মহানগরকে জমা দেবেন। পরবর্তীতে এই ব্যাপারে মহানগর আওয়ামী লীগ  করণীয় নির্ধারণ করবে। কেন্দ্রের নির্দেশনা মোতাবেক ইউনিট, ওয়ার্ড এবং থানা কমিটিগুলোতে সৃষ্ট শূণ্যপদ পূরণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। চেইন অব কমান্ডের ভিত্তিতে শূণ্য পদে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে। এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় চুড়ান্ত করা হবে।

নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির বলেন,সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হলে শূণ্য হওয়া পদগুলোতে নতুন নেতৃত্ব পদায়ন করতে হবে। তবে মনে রাখতে হবে পদ পাওয়া বড় কথা নয়। পদের সুবিচার করাই একমাত্র কথা। সংগঠনের পদ নিয়ে নিস্ক্রিয় থাকার সময় আর নেই। ওয়ার্ড ভিত্তিক অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। এসময় উপদেষ্টা শেখ মাহমুদ ইসহাক, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, বন ও পরিবেশ সম্পাদক মসিউর রহমান চৌধুরী, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, শ্রম সম্পাদক আবদুল আহাদ, সদস্য সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, বেলাল আহমেদ, থানা আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুদ্দৌলা সিরু, পাঠানটুলী ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সহসভাপতি ফজলুল হক,  সাধারণ সম্পাদক মো. সেলিম রেজা, সাবেক কাউন্সিলর আবদুল কাদের, নাজমুল হক ডিউক, নিছার উদ্দিন আহমদ মঞ্জু, আনজুমান আরা বেগম, শৈবাল দাশ সুমন, উত্তর আগ্রাবাদ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি সৈয়দ জাকারিয়া, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, আন্দরকিল্লা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইকবাল হাসান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দিদারুল ইসলাম, ওয়ার্ড যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মিরন হোসেন মিরনসহ সংশ্লিষ্ট নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

About bdsomoy