ব্রেকিং নিউজ

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক ডিজি আবুল কালামকে দুদকে তলব

মাস্ক-পিপিই কেলেঙ্কারি ও রিজেন্ট হাসপাতালের অনিয়ম অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আগামী ১২ ও ১৩ আগস্ট তাকে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছে। ৬ আগস্ট দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে পাঠানো একটি চিঠিতে তাকে তলব করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন সংস্থাটির পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য। চিঠিতে জানা যায় আগামী ১২ মাস্ক, পিপিই ইস্যুতে ও ১৩ আগস্ট রিজেন্ট হাসপাতাল কেলেঙ্কারির অভিযোগে হাজির হতে বলা হয়েছে।

নানা সময়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠলেও ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। অবশেষে তথ্য প্রমাণসহ দুদক তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে বলে দুদক সূত্রে জানা যায়। বিতর্ক আর সমালোচনার মুখে পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিলেন অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। অধ্যাপক ডা. দ্বীন মোহাম্মদ নুরুল হক অবসরে যাওয়ার পর স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছিলেন তিনি।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের দায়িত্ব পাওয়ার পর তার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে তাকে আবার দুই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়। বর্তমান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক নিজে উদ্যোগী হয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে এ নিয়োগ দেন। কিন্তু চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়ার পরই তার বিরুদ্ধে চরমভাবে দায়িত্ব-কর্তব্যে অবহেলা, শৈথিল্য, পক্ষপাত এবং নানা রকম দুর্নীতির অভিযোগ উত্থাপিত হয়। বিশেষ করে করোনা সংক্রমণের শুরুর পর থেকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের সীমাহীন দায়িত্বহীনতা স্পষ্ট হতে থাকে। একের পর এক ব্যর্থতা, দুর্নীতির অভিযোগ এবং নানা রকম অপকর্মের দায়ভার মাথায় নিয়ে শেষ পর্যন্ত পদত্যাগ করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ।

About bdsomoy