ব্রেকিং নিউজ

আম্মানের পুনর্বাসন কেন্দ্রে আটককৃত বাংলাদেশিদের জন্য দূতাবাসের উপহার

জর্ডানে বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান বাংলাদেশি বন্দিদের মাঝে নিত্যপ্রয়োজনীয় ব্যবহারের জিনিসপত্র হস্তান্তর করতে আম্মানের জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্রের পরিচালক দালাল সাওয়ালহা রাষ্ট্রদূতকে পুনর্বাসন কেন্দ্রে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান। রাষ্ট্রদূত জোয়াইদেহ পূর্নবাসন কেন্দ্র পরিদর্শনের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পরিচালক দালাল সাওয়ালহাকে ধন্যবাদ জানান।

জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্রে ১০৩ জন বাংলাদেশি মহিলা অবস্থান করছেন। এদের মধ্যে ৮৭ জন প্রশাসনিক কারণে আটক, ০২ জন বিচারিক কারণে আটক এবং ১৪ জন বিভিন্ন ফৌজদারি মামলায় সাজা প্রাপ্ত হয়ে অবস্থান করছেন। আম্মানস্থ পূনর্বাসন কেন্দ্রগুলোতে প্রশাসনিক কারণে আটকরা স্বদেশে ফিরে যেতে তাদের কাজগপত্র প্রক্রিয়া সম্পাদন করার জন্য সাধারণত ১৫-২০ দিনের জন্য স্বল্পমেয়াদে আটক হিসেবে অবস্থান করেন। তবে, এই করোনভাইরাস মহামারী চলাকালীন সময়ে বিমানবন্দর বন্ধ থাকায় তারা এই কেন্দ্রে ৪ মাস যাবত অপেক্ষা করছেন। এই মহামারীজনিত পরিস্থিতির কারণে আটক বাংলাদেশিদের সংখ্যা খুব বেশী বৃদ্ধি পেয়েছে। এমতাবস্থায়, তাদের প্রতিদিনের ব্যবহারের জন্য কিছু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ঘাটতি দেখা দেয়। এ প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তাদের জন্য দূতাবাসের পক্ষ থেকে পোশাক, সাবান এবং টেলিফোন কার্ড সম্বলিত ১০৩টি বাক্স হস্তান্তর করেন। দূতাবাসের শ্রম শাখার প্রথম সচিব মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান এ সময় রাষ্ট্রদূতের সাথে উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান উল্লিখিত জিনিসপত্র আটক বাংলাদেশিদের মধ্যে বিতরণ করার জন্য জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্রের পরিচালকের কাছে হস্তান্তর করেন। পরিচালক রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানান এবং এই সংকটের মুহুর্তে প্রয়োজনীয় সামগ্রী সমূহ সরবরাহ করে আটক বাংলাদেশিদের সহায়তা করার জন্য দূতাবাসের প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন।

About bdsomoy