ব্রেকিং নিউজ

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় রাতদিন কাজ করছে রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবকরা

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবকরা দিনরাত কাজ করে যাচ্ছে। এভাবেই চলছে দিনের পর দিন। দায়িত্বরত স্বেচ্ছাসেবকরাও একই কথা, মানবতার সেবায় নিজেকে কাজে লাগাতে পেরে নিজেদেরকে ধন্য মনে করছি। স্বেচ্ছাসেবকদের কোয়ান্টাইনের থাকাসহ সবধরনের সুরক্ষার ব্যবস্থা করেছেন রেড ক্রিসেন্ট কর্তৃপক্ষ। উল্লেখ্য, কোয়ান্টাইনে থাকা স্বেচ্ছাসেবকরা ছাড়াও স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করে ঢাকাসহ সারাদেশে একাধিক স্বেচ্ছাসেবক টিম স্প্রে কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জানায়, জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রমে অংশ নেয়া স্বেচ্ছাসেবকরা নিজের প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই স্প্রে কার্যক্রম পরিচালনা করছে । এছাড়াও তাদেরকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এই কার্যক্রমে তাদের করণীয় বিষয়ে দিক নির্দেশনাও প্রদান করা হচ্ছে।

অন্যদিকে, আজ সোমবার বিকেলে করোনা প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি গৃহিত বিভিন্ন কার্যক্রম পর্যালোচনা ও পরবর্তী কর্মপন্থা নির্ধরণ সম্পর্কে এক সমন্বয় সভা সোসাইটির কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ভাইস চেয়ারম্যান ও আইএফআরসির গভার্নিং বোডের সদস্য প্রফেসর ডা: মো: হাবিবে মিল্লাত, এমপি। এসময় সোসাইটির মহাসচিব মো: ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন, উপ মহাসচিব মো: রফিকুল ইসলামসহ পরিচালকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় কারোনাভাইরাস প্রতিরোধে বিডিআরসিএস পরিচালিত বিভিন্ন কার্যক্রমের অগ্রগতি ও পরবর্তী করণীয় নিয়ে আলোচনা হয়। সভা শেষে সোসাইটির ভাইস চেয়ারম্যান ফেইসবুক লাইভে সারাদেশে কর্মরত স্বেচ্ছাসেবকদের সাথে সরাসরি কথা বলেন ও প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

বাাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জানায়, ধারাবাহিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আজ বিকেলে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বেচ্ছাসেবকরা রাজধানীর রায়েরবাজার এলাকাসহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জীবণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম পরিচালনা করে। এছাড়াও সোমবার দিবাগত রাতে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ও বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবকরা যৌথভাবে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বক্ষব্যাধি হাসপাতাল, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ রাজধানীর ৮ টি হাসপাতালে জীবাণুনাশক স্প্রে করবে।

অপরদিকে, সারাদেশে জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের উদ্যোগে জীবাণুনাশক স্প্রে করাসহ বিভিন্ন প্রচারণামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রযেছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের না হওয়ার অনুরোধ জানিয়ে বিভিন্ন জেলায় মাইকিং করা হচ্ছে বলে ইউনিটে দায়িত্বরত কর্মকর্তারা জানান। এছাড়াও স্বেচ্ছাসেবকরা তাদের ফেইসবুক পেইজে বিভিন্ন সচেতনতামূলক পোস্টের মাধ্যমেও জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে।

Please follow and like us:

About bdsomoy