ব্রেকিং নিউজ

লোভ, স্বেচ্ছাচারিতা ও প্রতিহিংসা যেখানে প্রখর …… বিবেক সেখানে নির্বাসিত

সাহিত্য বিশারদ স্মৃতি সংসদ প্রতিষ্ঠা পরবর্তীতে কমিটি হতো নির্বাচনে। সম্পূর্ণ গনতান্ত্রিক পদ্ধতিতে, সাংবিধানিক নিয়মে প্রতিষ্ঠাতা মহোদয়কে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও দুই জন উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য সম্মনয়ে নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণা করতো ।
শুধু সভাপতি / সাধারণ সম্পাদক নয় প্রতিটি সম্পাদকীয় পদে একাধিক প্রার্থীর তুমুল প্রতিদন্ধিতার মাধ্যমে কমিটি গঠন হতো। সদস্যদের ঘরে ঘরে গিয়ে প্রার্থীরা ভোট চাইতো। খান মোহনা ষ্টেশন হতে তালতলা চৌকি পর্যন্ত ভোটের উৎসব বিরাজ করতো।উল্লেখ্য, আমার জানামতে পটিয়া ক্লাবের পর এই সংগঠনেই সদস্য ভর্তি প্রক্রিয়াই শিক্ষাগত যোগ্যতা বিবেচনা করা হতো।ফলে সদস্যদের অধিকাংশই শিক্ষিত এবং প্রতিষ্টিত ছিলেন। এই সংগঠনের সবচেয়ে বড় সাফল্য বার্ষিক সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক স্বর্ণ পদক প্রতিযোগিতা।

এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছেন এমন অনেকেই এখন জাতীয় পর্যায়ে শিল্পীর আসন অকলঙ্কিত করে আছে। চট্টগ্রামের আনাচে কানাচের সকল সাহিত্য সাংস্কৃতিক প্রেমীদের মিলন মেলা হতো সাবেক সুচক্রদন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের কৃষচুড়া গাছের পাদদেশে।

ক্রীড়া ক্ষেত্রেও আমরা দেখেছি- ফুটবল,ক্রিকেট ,বলিবল,বেটমিন্টন খেলতে সমগ্র পটিয়া থেকেই জড়ো হতে ক্রীডামোদী মানুষ। শত শত বৃক্ষের ছায়া আর ফুলের বাগানে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরূপ পরিমন্ডলে পটিয়ার একটি দর্শনীয় স্হানে রূপ নিয়েছিল সাহিত্য বিশারদ স্মৃতি সংসদ।

দেশ বরেণ্য রাজনীতিবিদ, বুদ্ধিজীবী এবং জাতীয় শিল্পীদের অংশগ্রহণে বার্ষিক অনুষ্ঠান গুলো ছিল এতদঞ্চলে সেরা। বছর জুড়ে পিকনিক, চড়ুইবাতি,
ভোজ আয়োজনের সমাহারে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ থাকতো সকল সদস্যবৃন্দ।

সদস্যদের অর্থ, পরিশ্রম ও সরকারি সহযোগিতায় মাতৃভান্ডার হতে খান মোহনা ষ্টেশন পর্যন্ত রাস্তার দুইপাশে হাজার হাজার বৃক্ষ রোপণ করে এতদঞ্চলে সামাজিক বনায়নে বৈপ্লবীক পরিবর্তন সাধিত করেছিল সাহিত্য বিশারদ স্মৃতি সংসদ।

সংগঠনের পরিচালনায় নিয়মিত গানের স্কুল, পাঠাগার,সামাজিক কর্মকান্ডের পাশাপাশি সদস্যদের আগ্রহে একসময় প্রতিষ্ঠা হয় সাহিত্য বিশারদ সমবায় সমিতি আর এই সমিতি নামক আর্থিক প্রতিষ্ঠানই পরবর্তীতে সাহিত্য বিশারদ সৃতি সংসদের সুস্থ সুন্দর সৃজনশীল কর্মকান্ডের কুঠরে প্রথম আঘাত হানে বৈ সময়ের ব্যবধানে কাল হয়ে দাড়াল আজ!

একটি প্রতিষ্ঠিত সংগঠনের আকাশে কালো মেঘে চেয়ে যায়।

চলবে …..

Please follow and like us:

About bdsomoy