ব্রেকিং নিউজ

১৬ ঘন্টা পর পাওয়া গেল আদরের মৃত দেহ

অবশেষে নিখোঁজ হওয়ার ১৬ ঘন্টা পর পাওয়া গেল হামেদ হাসান আদরের মৃত দেহ। ১৪ মে সকাল ৭ টার দিকে কর্ণফুলীতে ভাসমান অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করে আদরের পরিবারের সদস্যরা৷

১৩ মে বিকেল ৩ টায় কাপ্তাইয়ের শীলছড়ি এলাকায় কর্ণফূলীতে ডুবে নিখোঁজ হন আদর। জানা গেছে পরিবারের ১২ জন সদস্য নিয়ে চট্টগ্রামের হালিশহর থেকে কাপ্তাই ঘুরতে গিয়েছিলেন আদর। সারাদিন ঘুরাঘুরি শেষে বিকেলে তাদের কয়েকজন কর্ণফুলীতে গোসল করতে নামেন। তখন আদরের সাঁতার না জানা ভাগিনা আনোয়ারুল আরেফিন অনু (১৯) নদীতে ডুবে গেলে তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে আদরও ডুবে যান। পরে ভাগিনা অনুকে মূমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করা গেলেও আদরের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। মূমুর্ষ অবস্থায় হাসপাতালে নেয়া হলে অনুকে মৃত ঘোষণা করে কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ঘটনার পর থেকেই নৌবাহিনীর একটি ডুবুরি দল ও কাপ্তাই ফায়ার বিগ্রেড মিলে দফায় দফায় আদরের খোঁজে তল্লাশি চালায়। রাত ৯ টা পর্যন্ত তল্লাশি চালিয়ে কোন খোঁজ না পেয়ে তারা উদ্ধার অভিযান বন্ধ করে ফিরে গেছে। এমনটাই জানিয়েছে ঘটনাস্থলে থাকা আদরের স্বজনরা।

এই ঘটনায় নিহত হওয়া আনোয়ারুল আরেফিন অনুর লাশ নিয়ে পরিবারের সদস্যরা শহরে ফিরলেও স্বজনদের একটা অংশ কাপ্তাই থেকে আদরের সন্ধানে তল্লাশি চালাচ্ছিল বলে জানা গেছে।

ঘটনাস্থলে থাকা সেলিম নামে  এক স্বজন  জানিয়েছেন, নৌবাহিনীর ডুবরী দল ও কাপ্তাই ফায়ার বিগ্রেড মিলে ৯ টা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালিয়েছে। শেষে ৯ টার দিকে অভিযান বন্ধ করে তারা ফিরে গেছেন। তবে তারা ফিরে গেলেও গভীর রাত পর্যন্ত আদরের স্বজনরা স্থানীয়দের নিয়ে ব্যাক্তিগত উদ্যোগে অনুসন্ধান চালিয়েছেন। সারা রাত খুঁজেও আদরের কোন সন্ধান পাননি তারা। পরে সকাল সাতটার দিকে ভাসমান অবস্থায় কর্ণফুলী থেকে আদরের লাশ উদ্ধার করেন তারা।

উল্লেখ্য হামেদ হাসান আদর চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর ব্যক্তিগত সহকারী ওসমান গনীর ছোট ভাই। এই ঘটনায় নিহত আনোয়ারুল আরেফিন অনু  তার ভাগিনা।

Please follow and like us:

About bdsomoy