ব্রেকিং নিউজ

মোদিকে মহম্মদ বিন তুঘলকের ঠাকুরদা বললেন মমতা

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে মহম্মদ বিন তুঘলকের ঠাকুরদা বলে কটাক্ষ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ রোববার রাজ্যের উত্তরবঙ্গের ময়নাগুড়ির সভায় মমতা বলেন, আগে ছিল চাওয়ালা, এখন হয়েছে চৌকিদার। যা মনে হচ্ছে, করছে। নিজেকে মহম্মদ বিন তুঘলকের ঠাকুরদা ভেবে নিয়েছে।

এদিন ভারতের এনআরসি (জাতীয় নাগরিকপঞ্জি) প্রসঙ্গে  মমতা বলেন, ‘এভাবে সবাইকে তাড়িয়ে দিতে চাইছে। আমি মায়ের জন্মদিন জানি না। আমাকে মা কখনো বলেনি। আমিও জানতে চাইনি। এনআরসির নামে এভাবেই ৫০ বছর আগের তথ্য চাইছে। আবার বলছে, বাংলায় ক্ষমতায় এসে এখানেও এনআরসি করবে। আমি বলেছি, গায়ে হাত দিয়ে দেখুন, হ্যাঙ্গারের তলায় মিটিং করছেন, ওই হ্যাঙ্গারের তলায় ঢুকিয়ে দেব।’ বিজেপিকে এনআরসি হ্যাংলা বলেও কটাক্ষ করেন মমতা।

মমতা বলেন, বিজেপি বাইরের রাজ্য থেকে পশ্চিমবাংলায় লোক পাঠাচ্ছে ভোটের আগে। এদিন তিনি বিজেপি নেতা (আগে তৃণমূলের সেকেন্ড কম্যান্ড ছিলেন) মুকুল রায়কে হাওলার নেতা বলেও কটাক্ষ করেন।  রাজ্যে পুলিশ অফিসারদের নির্বাচন কমিশনে বদলি করায় ক্ষুব্ধ মমতা বলেন, দুই একজন পুলিশ অফিসারকে সরিয়ে ভোটে জিততে পারবেন না। সব অফিসারই আমাদের অফিসার। অত সস্তা না।

এদিন বিজেপিকে বসন্তের কোকিল বলে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, পাহাড়ে যে দাঙ্গা লাগিয়েছিল আজ তাকেই প্রার্থী করেছে বিজেপি। এখন সাধু সেজে ভোট চাইতে নেমেছে। মমতা সাফ বলেন, অনেক প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কাজ করেছি, এমন বাজে কথা বলা প্রধানমন্ত্রী দেখিনি। এত নিম্নমানের কথা এর আগে কোনো প্রধানমন্ত্রী বলেননি। মমতা আরো বলেন, টাকা দিয়ে মিছিলে লোক নিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। টাকা দেখিয়ে মোদি ভোট চাইছেন। টাকা চুরি করে সেই টাকা ভোটের আগে বিজেপি বিলি করছে বলেও এদিন অভিযোগ তোলেন মমতা।

Please follow and like us:

About bdsomoy