ব্রেকিং নিউজ

জিম্বাবুয়েকে মোকাবেলা করতে প্রস্তুত হচ্ছে বাংলাদেশ দল

চলে আসছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। আর ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়েকে মোকাবেলা করতে প্রস্তুত হচ্ছে বাংলাদেশ দল। দুবাইয়ের প্রচণ্ড গরমে সপ্তাহদুয়েক সময় নিয়ে এশিয়া কাপ খেলে আসার পরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সামনে বিশ্রামের সময় ছিলো মোটে ১৭-১৮ দিন। এর মধ্যে আবার ন্যাশনাল ক্রিকেট লিগ চলতে থাকায় সেখানেও অংশ নিয়েছেন জাতীয় দলের অনেক ক্রিকেটার। ফলে টানা খেলার মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। সে সাথে যারা মাঠে ছিলেননা তারাও অনুশীলন করেছেন নিজেদের মত করে। তবে এবার সম্মিলীতভাবে অনুশীলনে নামার পালা। আর সেটাও শুরু হয়ে গেছে গতকাল থেকে।

আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে আসন্ন জিম্বাবুয়ে সিরিজের প্রস্তুতি। আগেই জানা গিয়েছিল সোমবার থেকে নিজেদের ঝালিয়ে নেয়ার মিশনে নামবেন মাশরাফি-মাহমুদউল্লাহরা। সে মোতাবেক আজ সকাল সাড়ে নয়টা থেকেই খেলোয়াড়দের পদচারণায় মুখরিত মিরপুরের শেরে বাংলার ক্রিকেট স্টেডিয়াম। সূচী মোতাবেক সকাল সাড়ে নয়টা থেকে মিরপুর মূল স্টেডিয়ামের পাশাপাশি ইনডোর আউটার এবং ইনডোরে স্কিল অনুশীলন করেছেন স্কোয়াডে থাকা ক্রিকেটাররা। যা চলেছে বেলা ১২টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত। পরে ঘণ্টাখানেকের বিরতি দিয়ে ১টা ৩০ মিনিট থেকে শুরু হয় জিম সেশন। যা চলে দুপুর ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত।

অনুশীলনে ছিলেননা রুবেল হোসেন। গত কয়দিন ধরে তার প্রচণ্ড জ্বর। তাই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে ছুটি চেয়ে নেন। তাই  জিম্বাবুয়ে সিরিজের অনুশীলন ক্যাম্পে উপস্থিত হতে পারেননি তিনি। এছাড়া অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজও অনুপস্থিত ছিলেন। তিনিও জ্বরে আক্রান্ত । তবে এই দুজন ছাড়া দলে ডাক পাওয়া ১৫ সদস্যের ১৩ জনই প্রস্তুতি ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন। শুধু এই দুই ক্রিকেটারই নন। অনুপস্থিতির তালিকায় ছিলেন কোচরাও। চোখের ইনফেকশনে অনুশীলনে যোগ দিতে পারেননি স্ট্রেংথ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ মারিও ভিল্লা ভারায়ন।

সকালে ওয়ার্মআপ শেষে ব্যাটিং অনুশীলনের জন্য মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিঠুনদের নিয়ে যাওয়া হয় জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির নেটে। নেট সেশনে তাদের বিরুদ্ধে বল করেন স্কোয়াডের পেসার ও স্পিনাররা। পাশাপাশি নেট বোলাররাও ছিলেন। দেড় ঘণ্টার এই অনুশীলনে উপস্থিত ছিলেন দু্‌ই বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ ও সুনীল যোশী। অ্যাকাডেমির নেটে ব্যাটিং অনুশীলন শেষে দ্বিতীয় দফায় অনুশীলনের জন্য ব্যাটসম্যানরা সবাই চলে যান ইনডোরে। সেখানে বোলিং মেশিনে চলে ঘাম ঝরানো প্রস্তুতি। তৃতীয় দফায় শের ই বাংলা স্টেডিয়ামের সেন্টার উইকেটেও ব্যাটিং অনুশীলন হয়। সেখানে ব্যাটসম্যানদের সিঙ্গেলস রোটেট করতে বলা হয়। পিচের অদূরে জাল বেঁধে বিভিন্ন ফিল্ডিং পজিশন চিহ্নিত করে সেখানে বল পাঠাতে নির্দেশ দেন হেড কোচ স্টিভ রোডস। তার নির্দেশ অনুযায়ী কাজও করেন ব্যাটসম্যানরা। ব্যাটিং ঝালিয়ে নেন অধিনায়ক মাশরাফিও।

এদিকে বাংলাদেশ দল দুই দিন অনুশীলন করে ১৯ অক্টোবর বিকেএসপিতে সফরকারীদের বিপক্ষে খেলবে একটি একদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ। এরপর ২১ অক্টোবর মিরপুরে হবে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। পরে চট্টগ্রামের জহুর আহমদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আগামী ২৪ ও ২৬ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের পরবর্তী দুই ওয়ানডে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশ স্কোয়াডে যারা রয়েছেন তারা হলেন : মাশরাফি বিন মর্তুজা, লিটন কুমার দাস, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আরিফুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, আবু হায়দার রনি, মোহাম্মদ সাঈফউদ্দিন ও ফজলে মাহমুদ রাব্বি।

Please follow and like us:

About bdsomoy