ব্রেকিং নিউজ

দীর্ঘ-মেয়াদী বন্যা ঝুকি মোকাবেলায় বাংলাদেশকে সহযোগিতার আশ্বাস নেদারল্যান্ডের

ভূমি পূনুরুদ্ধার এবং নদীর নাব্যতা রক্ষার মাধ্যমে দীর্ঘ-মেয়াদে বন্যা ঝুকি নিরসনে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতে আগ্রহী মর্মে ইচ্ছা পোষণ করেছে নেদারল্যান্ড। আজ সকালে নেদারল্যান্ডের অবকাঠামো এবং পরিবেশ বিষয়ক মন্ত্রী মেলানি শুলজ-এর সাথে তাঁর দপ্তরে  নেদারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল সাক্ষাত করতে গেলে মন্ত্রী নেদারল্যান্ডের এ আগ্রহের বিষয় রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন।

বৈঠকে বিগত জুন ২০১৫’তে নেদারল্যান্ডের দু’জন মন্ত্রীর (অবকাঠামো এবং পরিবেশ বিষয়ক মন্ত্রী মেলানি শুলজ এবং বৈদেশিক বাণিজ্য ও উন্নয়ন সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী লিলিয়ান প্লুমান) বাংলাদেশ সফর এবং নভেম্বর ২০১৫’তে বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেদারল্যান্ড সফরের ফলশ্রুতিতে দু’দেশের মধ্যে ক্রমবর্ধমান এবং গতিশীল দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিষয়ে ডাচ মন্ত্রী এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সন্তোষ প্রকাশ করেন। জুন ২০১৫তে বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ডের মধ্যে স্বাক্ষরিত তিনটি গুরুত্বপূর্ণ সমঝোতা স্মারকের  – বাংলাদেশের টেকসই বদ্বীপ ব্যবস্থাপনা, ভূমি পূনুরুদ্ধার এবং টেকসই উন্নয়নে জ্ঞান এবং সৃজনীর সহযোগিতা – বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে সমঝোতা স্মারক সমূহ দ্রুত বাস্তবায়ন বিশেষ করে ভূমি পূনুরদ্ধার এবং তার ব্যবহার উপযোগীকরণে তাঁর সরকার শীঘ্রই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে মর্মে ডাচ মন্ত্রী রাষ্ট্রদূতকে আশ্বস্ত করেন। প্রাথমিকভাবে চট্রগ্রাম বন্দরে এবং বন্দরের আশেপাশে ভূমি পূনুরদ্ধারে  প্রকল্প শুরু করতে দু’পক্ষই আগ্রহ ব্যক্ত করেন। সমুদ্র তীরবর্তী এলাকায় সম্ভাব্য বাঁধ নির্মাণ, ভূমি পুনুরুদ্ধার এবং উন্নয়নে বাংলাদেশের প্রস্তাব বিবেচনারও আশ্বাস প্রদান করেন ডাচ মন্ত্রী।

১৯৬০ এর দশক থেকে বাংলাদেশের পানি ব্যবস্থাপনায় নেদারল্যান্ডের সহযোগিতার জন্য রাষ্ট্রদূত নেদারল্যান্ডের মন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন পূর্বক বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান ২১০০ বাস্তবায়নে নেদারল্যান্ডের সহযোগিতা আরও জোরদারের অনুরোধ করেন। বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান ২১০০ এর বৃহত্তর পরিসরে অববাহিকার পানি ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে দীর্ঘ মেয়াদে বন্যা ঝুকি নিরসন, নদী সমূহের নাব্যতা রক্ষা, বাংলাদেশ নদী গবেষণা ইন্সটিটিউটের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে এ বিষয়ে জ্ঞান বৃদ্ধির লক্ষ্যে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নেদারল্যান্ডের সহযোগিতা কামনা করেন। ডাচ মন্ত্রী বাংলাদেশে পানি সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহারের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান ২১০০ বাস্তবায়নে এবং বৈশ্বিক জলবায়ুর বিরুপ প্রতিক্রিয়া মোকাবেলায় নেদারল্যান্ডের অব্যাহত সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। ইউরোপের দেশসমূহ কিভাবে নিজেদের মধ্যে সহযোগিতা করে বন্যার ঝুকি নিরসন করেছে তা থেকে আমাদের অঞ্চলের দেশসমূহ শিখতে পারে বলেও মন্ত্রী উল্লেখ করেন।  নেদারল্যান্ডের অবকাঠামো এবং পরিবেশ বিষয়ক মন্ত্রী মেলানি শুলজ ডেল্টা কোয়ালিশনে বাংলাদেশের নেতৃত্বেরও ভূয়সী প্রশংসা করেন।

Please follow and like us:

About bdsomoy