সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
প্রচ্ছদচট্রগ্রাম প্রতিদিনরায় প্রত্যাখান করে চট্টগ্রামে গণজাগরণ মঞ্চের বিক্ষোভ

রায় প্রত্যাখান করে চট্টগ্রামে গণজাগরণ মঞ্চের বিক্ষোভ

চট্টগ্রাম অফিস (বিডি সময় ২৪ ডটকম)

জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমীর গোলাম আযমের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ ট্রাইব্যুনালে দেওয়া রায় প্রত্যাখান করে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে বিক্ষোভ-মিছিল সমাবেশ করেছে গণজাগরণ মঞ্চসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

সোমবার দুপুর সোয়া ২টার দিকে নগরীর চেরাগী পাহাড় মোড় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে গণজাগরণ মঞ্চ। মিছিল নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে স্বাধীনতা চত্বরে এসে শেষ হয়। এরপর সেখানে রায় প্রত্যাখানকারী ছাত্র-জনতা অবস্থান নিয়েছে।

এর আগে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ গোলাম আযমের বিরুদ্ধে পাঁচটি অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ৯০ বছরের কারাদণ্ড দেন।

গণজাগরণ মঞ্চের সদস্য সচিব ও সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী তরুণ উদ্যোগের আহবায়ক শরীফ চৌহান বলেন, ‘জাতি এ রায় মানে না। আমরা এ রায় প্রত্যাখান করছি।’

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে বলে জানান তিনি।

গণজাগরণ মঞ্চের বিক্ষোভ মিছিলে বিভিন্ন সংগঠনের পাশাপাশি সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী তরুণ, ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্র মৈত্রীর নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।

আবৃত্তি সংগঠন প্রমার সভাপতি রাশেদ হাসান বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের প্রধান বিরোধীতাকারী গোলাম আজমের ৯০ বছরের কারাদন্ড কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায়না। কোনো সুষ্ঠু বিবেকসম্পন্ন মানুষ এ রায় মেনে নিতে পারে না।’

জামায়াতের সাবেক এ আমীরের ফাঁসীই হচ্ছে একমাত্র শাস্তি বলে মনে করেন তিনি।

প্রীতম দাশ নামের এক বিক্ষুব্ধ তরুণ বলেন, ‘একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতাকারীদের এবং গণহত্যার নীলনকশা প্রণয়ন, সবকিছুর নেতৃত্বে ছিলেন জামায়াতের তৎকালীন আমীর গোলাম আযম। আর তাকেই দেওয়া হয়েছে ৯০ বছরের কারাদন্ড। তাহলে অন্যান্য ‍যুদ্ধাপরাধী-রাজাকারদের মৃত্যুদন্ড দিয়ে লাভ কি?’

এ রায়ে হতাশা প্রকাশ করে প্রীতম দাশ বলেন, ‘ এ রায়ের ফলে স্বাধীনতাবিরোধী এবং মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক শক্তি আরও বেশি শক্তিশালী হবে।’

এদিকে রায় ঘোষণার পরপরই ছাত্র ইউনিয়ন জামালখানের স্বাধীনতা চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। তারা রায় প্রত্যাখান করে এবং ‍যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেয়।

তারুণ্য স্কোয়াড নামের একটি সংগঠনও গোলাম আজমের রায় প্রত্যাখান করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

সোমবার সকালে জামায়াতের হরতাল প্রত্যাখান করে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ