রবিবার, মে ১৯, ২০২৪
প্রচ্ছদইন্টারভিউহজ ভিসা পাবেন না বৃদ্ধ ও অসুস্থরা

হজ ভিসা পাবেন না বৃদ্ধ ও অসুস্থরা

ষ্টাফরিপোর্টার (বিডিসময়২৪ডটকম)

বৃদ্ধ ও সংক্রামক ব্যাধিতে আক্রান্ত ব্যক্তিদের এ বছর হজ ও ওমরাহ ভিসা দেওয়া হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।
গতকাল শুক্রবার সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত ঘোষণা দেয় বলে আজ শনিবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে দেশটির প্রভাবশালী দৈনিক আরব নিউজ।
মধ্যপ্রাচ্যের রেসপাইরেটরি সিনড্রোম করোনাভাইরাসের (শ্বাসপ্রশ্বাসজনিত এক ধরনের সংক্রামক ব্যাধি) বিস্তার রোধেই সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
গত বছরের সেপ্টেম্বর মাস থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত সৌদি আরবে মোট ৬৬ জন ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ৩৮ জন।
সংক্রামক এই ব্যাধিটির বিস্তার ঠেকাতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) কর্মকর্তাসহ স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের সহায়তায় সম্ভাব্য সব ধরনের প্রতিরোধ ব্যবস্থা নিয়েছে সৌদি সরকার।
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র খালিদ আল-মিরঘালানি আরব নিউজকে বলেন, “সামনের হজ ও ওমরাহ মৌসুমেই নতুন এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে।”
তিনি জানান, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এ সংক্রান্ত দিকনির্দেশনা পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থিত সৌদি মিশনগুলোতে পাঠানো হবে এবং মিশনগুলো অত্যন্ত কঠোরভাবে এসব নির্দেশনা পালন করবে।
খালিদ জানান, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক সৌদি মিশনগুলো এ বছর বৃদ্ধদের হজ বা ওমরাহ ভিসা দেবে না।
পাশাপাশি যেসব ব্যক্তি ডায়াবেটিস বা হৃদপিণ্ড, কিডনি কিংবা শ্বাসনালী সংক্রান্ত অসুস্থতায় ভুগছেন তাদেরকেও হজ বা ওমরাহ ভিসা দেবে না সৌদি মিশন।
এসব ছাড়াও যারা অপুষ্টিজনিত শারীরিক সমস্যা বা ক্যান্সারের মতো রোগে ভুগছেন তারাসহ গর্ভবতী নারী ও শিশুদেরও এ বছর হজ বা ওমরাহ ভিসা দেওয়া হবে না বলে জানান সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র খালিদ।
একজন ব্যক্তির বয়স ঠিক কতো হলে তাকে বৃদ্ধ হিসেবে বিবেচনা করা হবে সে বিষয়ে অবশ্য কিছু বলেননি খালিদ। তিনি শুধু বলেছেন,  বয়স্ক যেসব ব্যক্তি শারীরিকভাবে দুর্বল এবং ভ্রমণের জন্য স্বাস্থ্য পরীক্ষায় অনুত্তীর্ণ হবেন তাদের হজ ও ওমরাহ ভিসার জন্য বিবেচনা করা হবে না।
প্রসঙ্গত, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থিত সৌদি মিশনগুলো চলতি রমজানের শেষে হজ ভিসা দেওয়া শুরু করবে।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ