সোমবার, জুন ১৭, ২০২৪
প্রচ্ছদদেশজুড়েস্বতন্ত্র প্রার্থিতায় ১% সমর্থনের বিধান তুলে দেওয়ার প্রস্তাব সিইসির

স্বতন্ত্র প্রার্থিতায় ১% সমর্থনের বিধান তুলে দেওয়ার প্রস্তাব সিইসির

স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে নির্বাচনী এলাকার ১% ভোটারের সমর্থনের শর্ত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ক্ষেত্রেও তুলে দেওয়ার প্রস্তাব সরকারের কাছে রাখবে নির্বাচন কমিশন। সোমবার নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে নির্বাচন কমিশনের সংবাদ সংগ্রহে নিয়োজিত সাংবাদিকদের সংগঠন ‘আরএফইডি টক’ এ সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তরে এ কথা জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল।

পাঁচ বছরের মেয়াদ শেষে বর্তমান কমিশন ২০২৭ সালে বিদায় নেবে। নতুন ইসির অধীনে ত্রয়োদশ সংসদ নির্বাচন হবে। বিধানটি পাস হলে তখন তা কার্যকর হবে। খবর বিডিনিউজের।

সিইসি বলেন, “১% সমর্থন তালিকার যে জটিল বিষয়টি ছিল, সেটা স্থানীয় সরকার নির্বাচন থেকে তুলে নিয়েছি। আগামীতে হয়ত জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও তুলে নেওয়ার প্রস্তাব সরকারের কাছে করব।” ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে এ কমিশনের নেওয়া নানা ধরনের কার্যক্রম তুলে ধরেন সিইসি। নির্বাচনী ব্যবস্থায় অনলাইনে মনোনয়ন জমা, ভোটের ফলাফল সংগ্রহে নতুন অ্যাপ চালুর বিষয়টিও তিনি তুলে ধরেন। সবশেষ উপজেলা ভোট প্রায় সহিংসতামুক্ত হয়েছে দাবি করে সিইসি বলেন, হয়ত দুজনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। অতীতের সাথে তুলনা করলে সহিংসতার মাত্রা কমে এসেছে। ৪৬৯টি উপজেলার ভোট শেষ হয়েছে, ভোটার উপস্থিতি তুলনামূলক কম হয়েছে। গড়ে ৩৬.৪৫% ভোট পড়েছে। তার ভাষ্য, স্থানীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্যরা তাদের পছন্দের প্রার্থীরা যেন জিতে আসেন, সেজন্যে প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করেছেন; কিন্তু ‘সফল হতে পারেননি’। তারপরও নির্বাচনী ব্যবস্থার আরও উন্নয়ন ও সংস্কার প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, হলফনামায় সম্পদের তথ্য যাচাই–বাছাই করে কমিশন কোনো ব্যবস্থা নেবে না।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ